বি’ছানায় ঝ’ড় তু’লতে গি’য়ে, হা’সপাতালে ভ’র্তি ২ জ’নেই

আবেদনে সাড়া দিয়েই বড় ধরনের বি’পদে পড়েন ওই স্বা’মী।দাম্পত্য জীবনে সু’খ ফিরিয়ে আনতে স্বা’মীর কাছে স্ত্রী’র ‘বিশেষ আবেদন’। নিজের স্ত্রী’র এমন আবেদনে স্বা’মীও সাড়া দেন। এখানে ঘটে যায় বিপত্তি।তাহলে ঘ’টনাটি খুলে বলা যাক- স্ত্রী’র দেয়া ‘বিশেষ মলমে’ বাড়বে শা’রীরিক সু’খ।

স্ত্রীযদিও শেষ পর্যন্ত বড় ধরনের বি’পদের হাত থেকে রক্ষা পেয়েছেন তিনি।ভারতের মহারাষ্ট্রে এই ঘ’টনাটি ঘটেছে।ভারতীয় গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী জানা যায়,সম্প্রতি ভারতের মুম্বাই মহারাষ্ট্রের এক যুবক তার স্ত্রী’র বি’রুদ্ধে চাঞ্চল্যকর অ’ভিযোগ এনেছেন। ওই যুবক ভারতীয় সে’নাবা’হিনীতে কাজ করেন।

কিছুদিন আগে ছুটির সময়ে তিনি নিজের বাড়িতে আসেন।আর সেই সময়ে ঘটে এই বিপত্তি।ভু’ক্তভোগী ওই স্বা’মীর অ’ভিযোগ, তার স্ত্রী’ বিশেষ একটি মলম দেন তাকে। ওই মলমটি গো’পনা’ঙ্গে দিলেই শা’রীরিক উত্তে’জনা বেড়ে যায় বলে তাকে (স্বা’মীকে) জানায় তার স্ত্রী’।

ওই যুবক স্ত্রী’র কথামতো মলমটি পু’রুষাঙ্গে মেখে নেন। কিন্তু, এরপরই প্রচণ্ড ব্য’থা শুরু হয় ওই যুবকের গো’পনা’ঙ্গে।শেষ পর্যন্ত ব্য’থা সর্হ্য করতে না পেরে চিকিৎসকের কাছে যান তিনি।

চিকিৎসার পরে ওই যুবক এখন মো’টামুটি সুস্থ রয়েছেন বলে জানা যায়। ওই স্বা’মীর অ’ভিযোগে আরও বলেন, ওই মলমের মধ্যে বি’ষ মাখানো ছিল। প্রে’মিকের স’ঙ্গে মিলে তাকে হ’ত্যার পরিকল্পনা করেছিল তার স্ত্রী’।এই অ’ভিযোগের ভিত্তিতে ওই না’রীকে জি’জ্ঞাসাবাদ করছে পু’লিশ।

এ ঘ’টনার পর থেকে প’লাতক রয়েছে ওই গৃ’হবধূর প্রে’মিক। ইতোমধ্যে তার খোঁজে অ’ভিযান চা’লিয়ে যাচ্ছে পু’লিশ।১ টাকার কয়েন পানিতে ভাসলেই ৫ কো’টি। এক টাকার কয়েন পানিতে ভাসালেই পাওয়া যাবে পাঁচ কোটি টাকা। বর্তমানে এমনই একটি খবর সোশ্যাল মিডিয়ায় হয়েছে ভাইরাল।

ঘ’টনাটি আসলে কি সত্য? এমন খবরের পর বিভিন্ন দোকান থেকে এই এক টাকার কয়েন কিনতে অনেককে দেখা গেছে।এর আগেও বহুবার এই কয়েন বিভ্রান্তিতে পড়েছিল লাখ লাখ মানুষ।

আবার নতুন করে এই শিরোনাম সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে। আর এ নিয়ে সৃষ্টি হয়েছে নানা বির্তক। তবে সুশীল সমাজ এমন খবরকে গুজব বলেই উড়িয়ে দিচ্ছেন।তাদের মতে, পৃথিবীর ইতিহাসে কোনোদিন এ ধরনের ঘ’টনা ঘটেনি। এমনকি আগামীতেও হবে না। এক শ্রেণির মানুষ সমাজের সহজ-সরল মানুষগুলোকে বোকা বানানোর জন্যই এমন খবর প্রচার করছে।

রাজধানীর এক দোকানদার জানান, বেশ কয়েকদিন ধরেই এই ১ টাকার কয়েন নেয়ার জন্য আমার কাছে কয়েকজন লোক এসেছিল। আমার দোকানে এই কয়েন নেই। আমিও এমন ধরনের একটা খবর কয়েকদিন ধরে শুনছি।রাজধানীর উত্তরার এক ভিক্ষুক জানান, আমার কাছে এক টাকার কয়েন আছে কিনা কয়েকটি লোক জানতে চেয়েছিল।

আমার কাছে নেই শুনে তারা চলে যায়।এ প্রস’ঙ্গে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের কর জরীপ ও পরিদর্শন বিভাগের সদস্য মো. মেহতাহ উদ্দীন খান বলেন, এই কয়েন কি কাজে ব্যবহার করা হয় তা সঠিকভাবে জানা নেই। সম্ভবত দামী কোন গহনা তৈরিতে এটির ব্যবহার হতে পারে তিনি আরো বলেন, আমার মনে হয় এটা রাজস্ব বোর্ডের কিছু না।

এটা যদি এমন হয়ে থাকে তাহলে আমার থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকের কোনো সদস্য বেশি বলতে পারবে।এ বি’ষয়ে মোহাম্ম’দপুর থানার ওসি বলেন, আমাদের কাছে এমন খবর এখনো আসেনি। আমি মনে করি এটা প্র’তারণা ছাড়া আর কিছুই না। একটি স্বার্থান্বেষী মহল এ ধরনের খবর রটাচ্ছে

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*