লক্ষাধিক মানুষকে ইসলামের আলোয় আলোকিত করলেন হিন্দু থেকে মুসলিম সিন্ধুর দ্বীন মোহাম্মদ শেখ

আলোচিত এই ব্যক্তি হলেন পা’কিস্তানের সি’ন্ধু প্রদেশের দ্বীন মোহাম্মদ শেখ। ১৯৪২ সালে একটি হিন্দু পরিবারে জ’ন্ম নেয়া এ ব্যক্তি ১৯৮৯ সালে ৪৭ বছর বয়সে ইসলামের সুশীতল ছায়াতলে আশ্রয় গ্রহণ করেন। এরপর থেকেই তিনি উদ্যোগী হন দ্বীনপ্রচারে। ইতিমধ্যেই তার হাতে ইসলাম গ্রহণ করেছেন প্রায় ১ লাখ ৮ হাযার মানুষ।

জন্মগতভাবে ইসলাম সম্প’র্কে ছিল তার ব্যাপক আগ্রহ। ইসলামের প্রতি এমন অনু’রাগ দেখে তার মা ১৫ বছর বয়সেই বিয়ে দিয়ে দেন। কিন্তু বি’য়ের পরও ইসলাম সম্পর্কে তার কৌতুহল একটুও কমেনি।

ইসলাম সম্প’র্কে জানতে তিনি এক মুস’লিম উস্তা’দের সাথে যোগাযোগ করেন এবং তার নিকটে নিয়মিত কুরআন ও হা’দীছের বাণী সম্পর্কে জ্ঞান লাভ করেন।

অতঃপর তিনি ইস’লাম গ্রহণ করেন। ইসলাম গ্রহণের পর থেকে পাকি’স্তানের সিন্ধু’ প্রদেশে হি’ন্দুসহ বিভিন্ন ধর্মাবলম্বীদের কাছে ইসলামের দাওয়াত দিতে থাকেন দ্বীন মুহাম্মাদ। বিভিন্ন সূত্রে পাওয়া তথ্য মতে, তাঁর দাওয়াতে এ পর্যন্ত ১ লাখ ৮ হাযার মানুষ ইসলাম গ্রহণ করেছেন। দ্বীন মু’হাম্মদ শেখ স্থা’নীয় আল্লাহওয়ালী

জামে মস’জিদের সভাপতি। তিনি অসহায় ইসলাম গ্রহণকারীদের আ’বাসনের জন্য প্রায় ৯ একর জায়গারও ব্যবস্থা করেছেন। তাঁর ধর্ম প্রচারের কথা পা’কিস্তানের বিভিন্ন রাজ্যে ছড়িয়ে পড়ায় অনেক দূর-দূ’রান্ত

থেকে মানুষ তার কাছে এসেই ইসলাম গ্রহণ করেন। তাই বাড়ির মসজিদে নও মুসলিম শিশু-কিশোর ও নারী- পুরুষের জন্য ১৫ দিনের বিশেষ প্রশিক্ষণ দিয়ে ছালাত ও কুরআন তেলাওয়াত শেখার ব্য’বস্থা রেখেছেন তিনি।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*